বাংলাদেশ: বুধবার ১৮ মে ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ | ১৬ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরি

  বাংলাদেশ: বুধবার ১৮ মে ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ | ১৬ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরি  

শেষ আপডেটঃ ৭:১৫ পিএম

কক্সবাজারের বঙ্গোপসাগরে ১৮৫ কচ্ছপের বাচ্ছা অবমুক্ত

8 / 100

মফিজুল ইসলাম মফি, কক্সবাজার: হ্যাচারিতে জন্ম নেওয়া ১৮৫টি কচ্ছপের বাচ্চা বঙ্গোপসাগরে অবমুক্ত করা হয়েছে। আজ দুপুরে উখিয়ার ইনানী উত্তর সোনারপাড়া এবং রামুর খুনিয়াপালং পেঁচারদ্বীপ সংলগ্ন পশ্চিম সৈকতে বাচ্চাগুলো সাগরে ছাড়া হয়।

বন বিভাগের সহায়তায় নেচার কনজারভেশন ম্যানেজমেন্ট (নেকম) এসব কচ্ছপের বাচ্চা সংরক্ষণ ও অবমুক্ত করেছে। কক্সবাজার দক্ষিণ বনবিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা মো. সরোয়ার আলম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

নেকম জানায়, গত ১৫ জানুয়ারি থেকে অলিভ রিড্লি জাতের কচ্ছপ সৈকতে ডিম দিয়েছিল। সেন্টমার্টিনসহ কক্সবাজারের বিভিন্ন অংশে দেওয়া ডিমগুলো সংগ্রহ করে নেকম। এসব ডিম হ্যাচারিতে রেখে বালুর নিচে বিশেষ কায়দায় ফুটানোর উদ্যোগ নেওয়া হয়। ৬০ থেকে ৯০ দিনের মধ্যে ডিমগুলো ফুটে বাচ্চা বের হয়।

নেচার কনজারভেশন ম্যানেজমেন্টের  প্রজেক্ট ডিরেক্টর ড. শফিকুর রহমান জানান, সেন্টমার্টিন থেকে এ পর্যন্ত প্রায় বারো হাজার ডিম সংগ্রহ করা হয়েছে। কক্সবাজার অংশে সংগ্রহ হয়েছে প্রায় ছয় হাজার।

কচ্ছপ প্রকৃতির সংরক্ষক উল্লেখ করে, কক্সবাজার দক্ষিণ বনবিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা মো. সরোয়ার আলম বলেন,  আমাদের অসচেতনতায় নিজের আবাসস্থল হারাচ্ছে এ উপকারী প্রাণীটি। নিষিদ্ধ জালে মাছ শিকারকালে আটকা পড়ে মারা যায় কচ্ছপ। তিনি আরও বলেন, এটি নিয়ন্ত্রণ সম্ভব না হলেও কচ্ছপ প্রজননে গুরুত্বারোপ করছে বনবিভাগ।

উল্লেখ্য, গত ২৪ মার্চ সেন্টমার্টিন বঙ্গোপসাগরে কচ্ছপের আরও ৬০টি বাচ্চা অবমুক্ত করেছে নেকম।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *