বাংলাদেশ: সোমবার ১৭ জানুয়ারি ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
৩ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ১৩ জমাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরি

  বাংলাদেশ: সোমবার ১৭ জানুয়ারি ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ৩ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ১৩ জমাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরি  

শেষ আপডেটঃ ৬:১১ পিএম

জার্মান সুপার কাপ ধরে রাখলো বায়ার্ন মিউনিখ

এইনগরে খেলাঘর: রবার্ট লিওয়ানোদোস্কির দুই গোলে বরুসিয়া ডর্টমুন্ডকে ৩-১ গোলে পরাজিত করে জার্মান সুপার কাপ শিরোপা নিজেদের কাছেই ধরে রেখেছে বায়ার্ন মিউনিখ। 
লিওয়ানোদোস্কির বুলেট হেডে ডর্টমুন্ডের সিগন্যাল ইডুনা পার্কে ৪১ মিনিটে এগিয়ে যায় বায়ার্ন। বিরতির পরপরই সফরকারীদের ব্যবধান দ্বিগুন করেন থমাস মুলার। ডর্টমুন্ড অধিনায়ক মার্কো রেয়াস দুর্দান্ত কার্লিং শটে ৬৪ মিনিটে এক গোল পরিশোধ করলেও তা শেষ পর্যন্ত কোন কাজে আসেনি। ১০ মিনিট পর লিওয়ানোদোস্কি নিজের দ্বিতীয় গোল করলে বড় জয়ে শিরোপা নিশ্চিত হয় বেভারিয়ান্সদের। ৩২ বছর বয়সী এই পোলিশ তারকা এনিয়ে ডর্টমুন্ডের বিপক্ষে ২৪ ম্যাচে ২৪টি গোল করলেন। বায়ার্নে আসার আগে এই ক্লাবেই তিনি ২০১০-২০১৪ সাল পর্যন্ত কাটিয়েছেন। ম্যাচ শেষে লিওয়ানোদোস্কি স্কাই স্পোর্টসকে বলেছেন, ‘এটা আমার কাছে অনেক বড় একটি বিষয়। এই শিরোপা আমাদের কাছে সত্যিই বিশেষ কিছু। সমর্থকদের সামনে নিজেদের প্রমানের সুযোগগুলো আমরা সবসময়ই কাজে লাগাতে চাই। আমরা সত্যিকার অর্থেই ম্যাচটি দারুন উপভোগ করেছি।’
ডর্টমুন্ড এনিয়ে শেষ ৬টি ম্যাচেই বায়ার্নের কাছে পরাজিত হলো।
প্রাক-মৌসুম প্রীতি ম্যাচগুলোতে চারটিতে জয়বিহীন থাকা বায়ার্নের জন্য এই জয়টা ছিল দারুন স্বস্তির। সর্বশেষ গত শুক্রবার বুন্দেসলিগার নতুন মৌসুমের প্রথম ম্যাচে বরুসিয়া মোনচেনগ্ল্যাডবাখের বিপক্ষে বায়ার্ন ১-১ গোলে ড্র করেছিল। নতুন কোচ জুলিয়ান নাগলসম্যানের অধীনে এটা বায়ার্নের প্রথম শিরোপা। গত বছরও মিউনিখে এই ডর্টমুন্ডকে হারিয়েই সুপার কাপের শিরোপা জিতেছিল বায়ার্ন। 
ম্যাচ শেষে নাগলসম্যান বলেছেন, ‘গ্ল্যাডবাখের বিপক্ষে আমরা ভাল খেলেছিলাম যার রেশ এই ম্যাচেও ছিল। সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়ে জয়ী হওয়াটা গুরুত্বপূর্ণ। লিওয়ানোদোস্কি আজ অসাধারণ খেলেছে।’
এদিকে ডর্টমুন্ডের তারকা স্ট্রাইকার আর্লিং ব্রট হালান্ড ও ১৬ বছর বয়সী আরেক স্ট্রাইকার ইউসুফা মুকোকোর জন্য কালকের দিনটি ছিল হতাশার। দুজনেরই দুটি গোল অফসাইডের কারনে বাতিল হয়ে গেছে। 
বায়ার্নের কিংবদন্তী স্ট্রাইকার গার্ড মুলারের স্মরণে উভয় দলই কালো আর্মব্যান্ড পড়ে মাঠে নেমেছিল। ৭৫ বছর বয়সে মুলার রোববার মৃত্যুবরণ করেছেন। ম্যাচ শুরুর আগে বায়ার্নের পুরো দল মুলারের নাম ও ৯ নম্বর সম্বলিত জার্সি পড়ে ওয়ার্ম-আপ করেছে। 
ইডুনা পার্কে বৃষ্টি¯œাত ম্যাচটিতে প্রথম থেকেই দুই দল বেশ আগ্রাসী ছিল। তারই ধারাবাহিকতায় ২৫ মিনিটের মধ্যে উভয় দলের তিনজন হলুদ কার্ড দেখে বসেন। ইংলিশ মিডফিল্ডার জুড বেলিংহ্যাম বায়ার্নের রক্ষনভাগ ভেঙ্গে রেয়াসের দিকে বল বাড়িয়ে দিলেও ২০ মিনিটে সেই সুযোগটি কাচে লাগাতে পারেননি ডর্টমুন্ড অধিনায়ক। যদিও তার শটটি দারুন দক্ষতায় রুখে দিয়েছিলেন বায়ার্ন গোলরক্ষক ম্যানুয়েল নয়্যার। হালান্ডের পাস থেকে ৩৬ মিনিটে মুকোকো বল জালে জড়ালেও অফসাইডের কারনে তা বাতিল হয়ে যায়। বিরতির চার মিনিট আগে সার্জি গ্যানাব্রির নিখুঁত ক্রস থেকে লিওয়ানোদোস্কির হেড বায়ার্নকে এগিয়ে দেয়। 
দ্বিতীয়ার্ধ শুরুর চার মিনিটের মধ্যে আলফোনসো ডেভিসের ক্রস থেকে লিওয়ানোদোস্কি বল ধরতে ব্যর্থ হলেও মুলার ব্যবধান দ্বিগুন করতে কোন ভুল করেননি। তিন মিনিট পর হালান্ড নয়্যারকে পরাস্ত করলেও এবারও অফসাইডের পতাকা উঠায় গোলটি বাতিল হয়ে যায়। ৬৪ মিনিটে বেলিংহ্যামের এসিস্টে দুর্দান্ত স্ট্রাইকে রেয়াস এক গোল পরিশোধ করেন। কিন্তু ৭৪ মিনিটে লিওয়ানোদোস্কি নিজের দ্বিতীয় গোল করলে ডর্টমুন্ডের সব আশা শেষ হয়ে যায়। কাল পুরো ম্যাচে ডর্টমুন্ডের রক্ষনভাগে বায়ার্ন খুব একটা ভুল করেনি। তারই ধারাবাহিকতায় তিনটি গোল এসেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *