বাংলাদেশ: বুধবার ১৯ জানুয়ারি ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
৫ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ১৫ জমাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরি

  বাংলাদেশ: বুধবার ১৯ জানুয়ারি ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ৫ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ১৫ জমাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরি  

শেষ আপডেটঃ ৫:৫৫ পিএম

জিয়ার মাজারে যেতে বাধার অভিযোগ মির্জা ফখরুলের

8 / 100

এইনগরে অনলাইন ডেস্ক: দলের ৪৩ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের কবরে পুস্পমাল্য অর্পন করে শ্রদ্ধা জানিয়েছে বিএনপি।

স্বাস্থ্য বিধি মেনে সকাল ১১টায় দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের নেতৃত্বে জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস, নজরুল ইসলাম খান, ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু শেরে বাংলা নগরে দলের প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের কবরে পুস্পস্তবক অর্পন করে শ্রদ্ধা জানান।  তারা প্রয়াত নেতার আত্মার মাগফেরাত কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করেন।

এ সময়ে দলের চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য আমান উল্লাহ আমান, আবদুস সালাম, অধ্যাপক আব্দুল কুদ্দুস, যুগ্ম মহাসচিব মাহবুব উদ্দিন খোকন, খায়রুল কবির খোকন, সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স, সাবেক সংসদ  সদস্য মেজর (অবসরপ্রাপ্ত) আক্তারুজ্জামান, মহানগর বিএনপির সদস্য সচিব আমিনুল হক, দক্ষিণের রফিকুল আলম মনজু, যুবদলের সভাপতি সাইফুল আলম নিরব ও সাধারণ সম্পাদক সুলতান সালাহউদ্দিন টুকু উপস্থিত ছিলেন।

পরে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীও জিয়াউর রহমানের কবরে পুস্পস্তবক অর্পন করেন।  এ সময়ে দলের স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক মীর সরফত আলী সপু ও ঢাকা জেলার সাধারণ সম্পাদক খন্দকার আবু আশফাক উপস্থিত ছিলেন। 

ঢাকা মহানগর বিএনপি উত্তর-দক্ষিণ এবং যুবদলের পক্ষ থেকেও আলাদাভাবে পুস্পস্তবক অর্পন করা হয়।

১৯৭৮ সালের ১ সেপ্টেম্বর রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল-বিএনপি  প্রতিষ্ঠা করেন। 

‘চন্দ্রিমা উদ্যানে কঠোর বিধিনিষেধ’

সংসদ অধিবেশন উপলক্ষে সকাল থেকে চন্দ্রিমা উদ্যানে ব্যাপক পুলিশ মোতায়েন করা হয়। সাধারণ প্রবেশাধিকারে বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়।  ফলে বিএনপির ৪৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর শ্রদ্ধা নিবেদনে নেতা-কর্মীদের প্রবেশ করতে দেয়নি পুলিশ।

সকাল ১০টা ৪০ মিনিটে চন্দ্রিমা উদ্যানের প্রবেশ পথ দিয়ে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাসসহ ১০/১২ জন পায়ে হেটে জিয়াউর রহমানের সমাধিস্থলে আসেন।  আগে দলের স্থায়ী কমিটির সদস্যদের গাড়ি নিয়ে প্রবেশ করতে দিলেও এবার পুলিশ তা দেয়নি।

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর অভিযোগ করে বলেন, আজকে আমাদেরকে নেতা-কর্মী নিয়ে আসতে দেওয়া হয়নি।  সরকার বিধি-নিষেধ আরোপ করেছে, সম্পূর্ণভাবে তারা বিধিনিষেধ জারি করেছে।

‘পুলিশ আগেই জানিয়ে দিয়েছে আজকে ৩০ জনের বেশি আসা যাবে না।  এটা নাকি এখন তাদের (পুলিশ) কন্ট্রোলের মধ্যে নেই।  আরও বড় নিরাপত্তার আন্ডারে চলে গেছে।  এভাবে তারা বাঁধার সৃষ্টি করেছে, আমাদেরকে বাঁধার সৃষ্টি করেছে।’

গত ১৭ আগস্টের নবগঠিত ঢাকা মহানগর উত্তর-দক্ষিণের নবগঠিত আহবায়ক কমিটির নেতাকর্মীরা জিয়াউর রহমানের কবরে পুস্পমাল্য অর্পন করতে এলে পুলিশি হামলার ঘটনা তুলে ধরে তিনি বলেন, মাজারে যখন আমরা আসি তখন আমাদেরকে বাঁধা দেয়া হয়, নেতাকর্মীদের ওপর গুলি চালানো হয়, গুলিবর্ষণ করা হয়, আমাদের নেতাকর্মীদের গ্রেফতার করা হয়।  আমরা অবিলম্বে তাদের মুক্তি চাই, তাদের মামলা প্রত্যাহার চাই।

তবে তেঁজগাও জোনের এডিসি রুবাইয়াত জামান সাংবাদিকদের বলেন, এখানে বাঁধা দেওয়ার কোনো ঘটনা ঘটেনি। 
আপনারা উপস্থিত ছিলেন কারা কারা এসেছেন দেখেন।  প্রত্যেকে কিন্তু বাঁধাহীনভাবে প্রবেশ করেছেন এবং শ্রদ্ধা নিবেদন করে চলে গেছেন। সুন্দরভাবে তারা তাদের কর্মসূচিটি সম্পন্ন করেছেন।

এদিকে দুপুরে নয়াপল্টনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের নিচতলায় ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ-ড্যাবের উদ্যোগে হেলফ ক্যাম্পের উদ্বোধন করেন বিএনপি মহাসচিব।

এ সময়ের ড্যাবের সভাপতি অধ্যাপক হারুন আল রশিদ ও মহাসচিব অধ্যাপক আব্দুস সালামসহ বিশেষজ্ঞ চিকিতসকরা দুস্থ ও গরীব মানুষদের চিকিতসা পত্র ও বিনামূল্যে ঔষধ পত্র দেন।

প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে সকালে নয়া পল্টনে কেন্দ্রীয় কার্যালয় ও গুলশানে চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে দলীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *