বাংলাদেশ: রবিবার ৩ জুলাই ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
১৯ আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ | ৩ জিলহজ ১৪৪৩ হিজরি

  বাংলাদেশ: রবিবার ৩ জুলাই ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১৯ আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ | ৩ জিলহজ ১৪৪৩ হিজরি  

শেষ আপডেটঃ ৭:০৫ পিএম

‘ধানখেতে দিলেও ভালো খেলতে হবে পেশাদার ক্রিকেটারদের’

4 / 100

এইনগরে খেলাঘর: সাম্প্রতিক সময়ে ঘরের মাঠে সাফল্যের একটি পদ্ধতি বের করে ফেলেছে বাংলাদেশ দল। অত্যধিক স্পিনিং উইকেট বানিয়ে প্রতিপক্ষকে সেটিতে ঘায়েল করে ম্যাচ জেতার কৌশলে এখন পর্যন্ত বেশ সফল টাইগাররা। তবে এই পরিকল্পনায় প্রতিপক্ষ হতে হয় উপমহাদেশের বাইরের।

কেননা এশিয়ার বাইরের দেশগুলো তেমন ভালো স্পিন খেলতে পারে না। যে সুবিধা কাজে লাগিয়ে ইংল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া, ওয়েস্ট ইন্ডিজকে টেস্টে হারিয়েছে বাংলাদেশ। কিন্তু একই পরিকল্পনা বুমেরাং হয়েছিল শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে।

মূলত উপমহাদেশের দলের বিপক্ষে স্পিন উইকেটে খেলার কৌশলটা পুরোপুরি কার্যকর নয়। যে কারণে পাকিস্তানের বিপক্ষে চলতি সিরিজের ঢাকা টেস্টে কেমন উইকেট করবে বাংলাদেশ, তা নিয়ে একটি প্রশ্নের জায়গা থেকেই যায়।

অধিনায়ক মুমিনুল হকও এ বিষয়ে খানিক দ্বিধা প্রকাশ করেছেন। উইকেটের বিষয়ে জিজ্ঞেস করা হলে তিনি বলেন, ‘উপমহাদেশের সবাই স্পিন ভালো খেলে। তাদের বিপক্ষে স্পিনিং উইকেট না করাটাই ভালো। সব দলই তা-ই করে। আমার কাছে মনে হয়, ফ্ল্যাট উইকেটই ভালো। আমার এটাই পছন্দ।’

ম্যাচের আগেরদিন সংবাদ সম্মেলনে তিনি আরও বলেন, ‘মিরপুরের উইকেট আমরা সবাই জানি যে, বলা কঠিন…আমার কাছে মনে হয়, সাদা বলে একরকম উইকেট হয়, লাল বলে আরেকরকম। সাদা বলে দুই পাশ থেকে নতুন বল থাকে, তখন বিভিন্ন কিছুর মুখোমুখি হতে হয় ব্যাটসম্যানদের। তবে লাল বল তো একটিই থাকে। আমার কাছে মনে হয়, সাদা বলের চেয়ে ভালো উইকেট হবে লাল বলে।’

তবে উইকেট যেমনই হোক, পেশাদার ক্রিকেটার হিসেবে নিজেদের সবটুকু দিয়ে খেলার শক্ত বার্তাই দিয়েছেন টাইগার অধিনায়ক। এমনকি ধানখেতের মতো উইকেট হলে সেখানেও ভালো খেলতে হবে বলে মনে করেন মুমিনুল।

তার ভাষ্য, ‘পেশাদার ক্রিকেটার হিসেবে উইকেট বা এগুলো নিয়ে অজুহাত দেওয়াটা কখনোই কাম্য নয়। আমিও এটার সঙ্গে একমত হই না। পেশাদার ক্রিকেটারদের যদি ধানক্ষেতেও দেন, ওখানেই ভালো খেলতে হবে। আমার কাছে মনে হয়, অজুহাত না দিয়ে জেতার জন্য আরেকটু পেশাদার হলে আরও ভালো হয়।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *