বাংলাদেশ: রবিবার ১৪ আগস্ট ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
৩০ শ্রাবণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ | ১৫ মহর্‌রম ১৪৪৪ হিজরি

  বাংলাদেশ: রবিবার ১৪ আগস্ট ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ৩০ শ্রাবণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ | ১৫ মহর্‌রম ১৪৪৪ হিজরি  

শেষ আপডেটঃ ৭:০৫ পিএম

ভয়াবহ এপ্রিলে ধর্ষণেও রেকর্ড

এইনগর অনলাইন ডেস্ক: প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউয়ের কারণে এপ্রিল মাসটা ছিলো বেশ দুর্বিষহ।করোনায় মৃত্যু এবং আক্রান্তের দিক দিয়ে দেশে রেকর্ডের পর রেকর্ড হয়েছে এই মাসে।যদিও সরকারের পদক্ষেপে ধীরে ধীরে কমতির দিকে করোনা সংক্রমণ। 

ভয়াবহ এই মাসটিতে করোনার পাশাপাশি আরও একটি বিষয়ে রেকর্ড হয়েছে বাংলাদেশে।সেটি হলো ধর্ষণ।২০২১ সালের বিগত চার মাসের মধ্যে এপ্রিল মাসে সর্বোচ্চ সংখ্যক নারী ও কন্যাশিশু ধর্ষণের শিকার হয়েছে। 

এপ্রিল মাসে দেশে ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে ১৬৮টি।এরমধ্যে ১৩৭টি ধর্ষণ এবং ৩১টি গণধর্ষণ।৯ জন প্রতিবন্ধী শিশু ও কিশোরী ধর্ষণের শিকার হয়েছে।এছাড়া নারী ও শিশু নির্যাতনের ঘটনা ঘটেছে ৩৭১টি।

শনিবার (১ মে) গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছে মানবাধিকার সংস্কৃতি ফাউন্ডেশন (এমএসএফ)।

এর আগে গত মার্চ মাসে ১০৯ জন নারী ও কন্যাশিশু ধর্ষণের শিকার হয় বলে জানায় বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ।এছাড়া ফেব্রুয়ারিতে ধর্ষণের শিকার হয় ১২১ জন নারী, কন্যাশিশু এবং বছরের প্রথম মাস জানুয়ারিতে ১০৮ জন নারী ধর্ষণের শিকার হন।

মানবাধিকার সংস্থা সংস্কৃতি ফাউন্ডেশন নিজেরা ও বিভিন্ন গণমাধ্যম থেকে এপ্রিল মাসে ধর্ষণ ও নির্যাতনের তথ্য সংগ্রহ করেছে।তারা বলছে, মহামারির মধ্যেও দেশে নারী ও শিশুদের প্রতি সহিংসতা যেমন ধর্ষণ, হত্যা ও পারিবারিক নির্যাতনের ঘটনার বেড়েই চলেছে।

বিজ্ঞপ্তিতে সংস্থাটি বলেছে, ধর্ষণের শিকার ১৩৭ জনের মধ্যে ৭৬ জন শিশু ও কিশোরী। এপ্রিলে ধর্ষণের চেষ্টা হয়েছে ১৫টি। যৌন হয়রানি ২২টি ও শারীরিক নির্যাতনের ২৯টি ঘটনা ঘটেছে। এই সময়ে অ্যাসিড নিক্ষেপে আক্রান্ত হয়েছেন ২ নারী। এ ছাড়া ৩২ জন কিশোরীসহ মোট ৬৯ জন নারী আত্মহত্যা করেছেন। আর অপহরণের শিকার হয়েছে তিন শিশু, চার কিশোরী ও দুই নারী। অপরদিকে ১১ শিশু নিখোঁজ রয়েছে। 

এ ছাড়া গত মাসে ৭৫ জন নারী ও শিশু হত্যাকাণ্ডের শিকার হয়েছেন জানিয়ে সংস্থাটি বলেছে, গণমাধ্যম সূত্রে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী পারিবারিক বিরোধ, প্রতিশোধ, যৌতুক, তালাক এবং জমিসংক্রান্ত বিরোধ প্রভৃতি কারণে এ হত্যাকাণ্ডগুলো সংঘটিত হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *