বাংলাদেশ: সোমবার ১৫ আগস্ট ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
৩১ শ্রাবণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ | ১৬ মহর্‌রম ১৪৪৪ হিজরি

  বাংলাদেশ: সোমবার ১৫ আগস্ট ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ৩১ শ্রাবণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ | ১৬ মহর্‌রম ১৪৪৪ হিজরি  

শেষ আপডেটঃ ৭:০৫ পিএম

রোমাঞ্চ জাগিয়েও হারল রাজস্থান

এইনগর খেলাঘর: মূল পেসার জোফরা আর্চার ইনজুরিতে ছিটকে পড়ায় আইপিএলের চলতি আসরে রাজস্থান রয়্যালসের প্রথম ম্যাচেই সুযোগ পেয়েছিলেন মোস্তাফিজুর রহমান। কিন্তু  নিজের নতুন দলের হয়ে অভিষেক রাঙাতে পারলেন না বাংলাদেশি বাঁহাতি পেসার।

রান খরচ করলেন দেদারসে। আর তার দল রাজস্থানও হার দিয়েই আসর শুরু করলো। যদিও রেকর্ড গড়া সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে শেষ বল পর্যন্ত লড়ে গেলেন অধিনায়ক সঞ্জু স্যামসন।

সোমবার রাতে মুম্বাইয়ের ওয়াংখড়ে স্টেডিয়ামে আসরের চতুর্থ ম্যাচে পাঞ্জাব কিংসের বিপক্ষে ৪ রানে হেরেছে রাজস্থান।

টসে হেরে শুরুতে ব্যাটিং করতে নেমে ৬ উইকেট হারিয়ে ২২১ রানের বিশাল সংগ্রহ দাঁড় করায় পাঞ্জাব। জবাবে ৭ উইকেট হারিয়ে ২১৭ রান করে রাজস্থান।

লক্ষ্য তাড়ায় নামা রাজস্থান স্কোর বোর্ডে কোনো রান যোগ করার আগেই বেন স্টোকসের উইকেট হারিয়ে বসে। ইংলিশ অলরাউন্ডারকে মিডল অর্ডারে না নামিয়ে কেন ওপেনিংয়ে নামানো হলো সে এক প্রশ্ন বটে। এরপর আরেক ওপেনার মনন (১২) দ্রুত বিদায় নিলে জস বাটলারকে নিয়ে প্রাথমিক ধাক্কা কাটিয়ে উঠেন সঞ্জু স্যামসন। ইংলিশ ব্যাটসম্যান ১৩ বলে ২৫ রানের ক্যামিও ইনিংস খেলে বিদায় নেন।

রাজস্থানের নতুন অধিনায়ক স্যামসন ব্যাট হাতে রীতিমত ঝড় তুলেছেন। তাকে যোগ্য সঙ্গ দিয়েছেন শিভম দুবে (১৫ বলে ২৩) ও রায়ান পরাগ (১১ বলে ২৫)। এর মধ্যে পরাগ তো ছোট ঝড় তোলার পথেই ছক্কাই হাঁকিয়েছেন ৩টি। মূলত এই ঝড়েই লক্ষ্যটাকে হাতের নাগালে দেখতে পাচ্ছিল রাজস্থান। কিন্তু মোহাম্মদ শামির লাফিয়ে উঠা বলে ফ্লিক করতে গিয়ে শেষ হয় পরাগ ঝড়।

শেষ তিন ওভারে জেতার জন্য রাজস্থানের দরকার ছিল ৪০ রান। ক্রিজে ছিলেন মূল ভরসা হয়ে থাকা অধিনায়ক স্যামসন। ঝেই রিচার্ডসনের করা ইনিংসের ১৮তম ওভারের প্রথম ৩ বলে ২ চার ও এক ছক্কায় আইপিএল অধিনায়ক হিসেবে নিজের অভিষেক ম্যাচেই সেঞ্চুরির দেখা পান এই ডানহাতি, তাও মাত্র ৫৪ বলেই!

রিচার্ডসনের ওই ওভারে আসে ১৯ রান। যার ১৭ রানই স্যামসনের ব্যাট থেকে আসে। শেষ দুই ওভারে জিততে দরকার ছিল ২১ রান। কিন্তু ১৯তম ওভারের প্রথম বলেই ক্যাচ তুলে দিয়ে বিদায় নেন রাহুল তেওয়াতিয়া। এরপর নামেন আইপিএলের সবচেয়ে দামি খেলোয়াড় ক্রিস মরিস। ১৬ কোটি ২৫ লাখ রুপির এই প্রোটিয়া অলরাউন্ডারকে সঙ্গী করে শেষ ৬ বলে ১৩ রানের সমীকরণ মেলাতে পারেননি স্যামসন।  

যদিও শেষ ওভারের চতুর্থ বলে ছক্কা হাঁকিয়ে রোমাঞ্চ জাগিয়েছিলেন স্যামসন। কিন্তু শেষ পর্যন্ত জয়ের নায়ক হতে পারেননি। শেষ বলে অধিনায়ক ক্যাচ তুলে দিলে হেরে যায় রাজস্থান। সেই সঙ্গে শেষ হয় এক রেকর্ড গড়া ইনিংসও। ৬৩ বলে ১১৯ রানের দুর্দান্ত এই ইনিংসটি ১২টি চার ও ৭টি ছক্কায় সাজানো। এটা আবার চলতি আসরের প্রথম সেঞ্চুরিও বটে। কিন্তু দলের বাকিদের ব্যর্থতায় জয়ের মালা পরা হলো না তার।

এর আগে অধিনায়ক ও ওপেনার লোকেশ রাহুলের ৯১ ও দীপক হুডার ৬৪ রানের ঝড় দুটি ইনিংসে ভর করে রান পাহাড়ে চড়ে পাঞ্জাব। রাহুলের সেঞ্চুরি ছুঁইছুঁই ইনিংসটি ৫০ বলে ৭ চার ও ৫ ছক্কায় সাজানো। দীপক তার ৬৪ রানের ইনিংস খেলতে বল খরচ করেছেন মাত্র ২৮টি। হাঁকিয়েছেন ৪টি চার ও ৬টি ছক্কা। এছাড়া ২৮ বলে ৪ চার ও ২ ছক্কায় ৪০ রান করেন ক্যারিবীয় ব্যাটিং দানব ক্রিস গেইল।

বল হাতে রাজস্থানের সবচেয়ে খরুচে বোলার মোস্তাফিজ। ৪ ওভারে ৪৫ রান খরচ করেছেন এই বাঁহাতি পেসার। ওভারপিছু ১১.২৫ রান খরচ করা ফিজ কোনো উইকেটের দেখাও পাননি। আইপিএলের সবচেয়ে দামি খেলোয়াড় ক্রিস মরিস ২ উইকেটের দেখা পেলেও ৪ ওভারে রান খরচ করেছেন ৪১। বরং ভারতীয় বোলার চেতন সাকারিয়া ৪ ওভারে ৩১ রান খরচ করে পেয়েছেন ৩ উইকেট।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *